বৈদেশিক ঋণ নিয়ে ডঃ মুহাম্মদ ইউনুসের নতুন তত্ত্ব

কানাডা সফররত বাংলাদেশের নোবেল বিজয়ী ডঃ মুহাম্মদ ইউনুস কানাডা সরকারকে প্রস্তাব দিয়েছেন, বাংলাদেশের জন্য কানাডা সরকারের বরাদ্ধকৃত ঋণের ১০ থেকে ১৫ শতাংশ যেন তার "সামাজিক ব্যবসা" খাতে দেওয়া হয়[..]

কানাডা সফররত বাংলাদেশের নোবেল বিজয়ী ডঃ মুহাম্মদ ইউনুস কানাডা সরকারকে প্রস্তাব দিয়েছেন, বাংলাদেশের জন্য কানাডা সরকারের বরাদ্ধকৃত ঋণের ১০ থেকে ১৫ শতাংশ যেন তার “সামাজিক ব্যবসা” খাতে দেওয়া হয়। ডঃ ইউনুস কানাডা সরকারকে বোঝাতে চেষ্টা করছেন যে, বরাদ্ধকৃত অর্থ ঠিক কি খাতে ব্যয় হচ্ছে, তা না জেনে কিংবা বরাদ্ধকৃত অর্থ আর কোন দিনই ফেরত পাওয়া যাবেনা, তা নিশ্চিত জেনেও বাংলাদেশ সরকারকে অর্থ বরাদ্ধ দেওয়ার চেয়ে তাঁর তথাকথিত ” সামাজিক ব্যবসায় “ অর্থ বরাদ্ধ দিলে তা থেকে একটি ভাল ফল পাওয়া যাবে।

ডঃ ইউনুসের মত বিশ্ব পরিচিত দারিদ্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত একজন নোবেল বিজয়ী যোদ্ধার কাছে সরকার ও আমরা সাধারণ জনগনের প্রত্যাশা অনেক বেশী। তিনি দেশ, সরকার ও জাতির প্রতিনিধিত্বকারী একজন হয়েও নিজের সেই কর্পোরেট বাণিজ্যকে বেগবান করার প্রত্যয়ে একটি দাতা রাষ্ট্রের কাছে ঋণ গ্রহীতা দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে কিভাবে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্যভাবে উপস্থাপন করলেন, তা আমার বোধগম্য নয়।

ডঃ মুহাম্মদ ইউনুস যে সামাজিক ব্যবসার কথা বলেন, তা আমি যেমন বুঝিনা, বাংলাদেশের অনেক বড় বড় অর্থনীতিবিদরাও বোঝেন না বলে আমি জানি। আমি যতটুকু বুঝি, বৈদেশিক সাহায্য রাষ্ট্রের কাছে দেওয়ায়ই সবচেয়ে উত্তম। এসব সাহায্য দেশের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষিসহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও অনগ্রসর খাতসমূহে ব্যয় হবে । সাধারণত কোন দেশের নীতি বাস্তবায়নের স্বার্থেই এই সব বৈদেশিক অনুদান ও ঋণ সাহায্য আমাদের মত দেশে এসে থাকে এবং শেষ পর্যন্ত এসব সাহায্য আমাদের অর্থনৈতিক নির্ভরশীলতা বাড়ায়। এসব সাহায্য যত বর্জন করা যায় ততই দেশের জন্য মঙ্গল।

বৈদেশিক সাহায্য ব্যক্তির সামাজিক বাণিজ্য খাতে দিয়ে জনগনের কি লাভ হবে ? তাছাড়া একটি দাতা রাষ্ট্রকে এই ধরনের প্রস্তাব দিয়ে রাষ্ট্রকে ছোট করার কোন অধিকার ডঃ ইউনুসের নেই ।

ডঃ মুহাম্মদ ইউনুস গ্রামীন ব্যাংক, গ্রামীনফোনসহ বিভিন্ন ব্যবসাকে যে সামাজিক ব্যবসা বলে অভিহিত করেন সেগুলো দারিদ্রতা হ্রাসে কতটুকু ভূমিকা রেখেছে ? ডঃ ইউনুস-এর কথিত সামাজিক ব্যবসা হচ্ছে বহুজাতিক পূঁজির ছদ্মবেশী বাজার । কানাডা সরকারকে দেওয়া তার প্রস্তাবের অর্থ দাড়ায়, এদেশে বহজাতিক পূঁজিকে আমন্ত্রন জানানো । এতে বাংলাদেশের প্রাপ্তি কিছুই নেই।

তাই, ডঃ মুহাম্মদ ইউনুসের প্রতি আমার জিজ্ঞাসা :

বৈদেশিক ঋণের টাকায় সামাজিক বাণিজ্য, নাকি ছদ্মবেশী বহুজাতিক পূঁজির বাজার তৈরী করবেন ?

নুর নবী দুলাল

সভ্য হওয়ার প্রচেষ্টায় অনর্থক ক্লান্ত.....

73
আলোচনা শুরু করুন কিংবা চলমান আলোচনায় অংশ নিন ~

মন্তব্য করতে হলে মুক্তাঙ্গনে লগ্-ইন করুন
avatar
  সাবস্ক্রাইব করুন  
সাম্প্রতিকতম সবচেয়ে পুরোনো সর্বাধিক ভোটপ্রাপ্ত
অবগত করুন
রায়হান রশিদ
সদস্য

লেখকের প্রতি অনুরোধ করছি লেখাটির সাথে প্রকৃত/প্রাসঙ্গিক সংবাদের রেফারেন্স এবং লিন্ক যুক্ত করার।

ধন্যবাদ।

অবিশ্রুত
সদস্য

এ সম্পর্কে ১০ অক্টোবর আমাদের সময়-এ রিপোর্ট করেছেন দুলাল আহমদ চৌধুরী : সাহায্য কমিয়ে ‘সামাজিক ব্যবসা’য় অর্থ দিন কানাডার প্রতি ড. ইউনূস নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস বাংলা-দেশকে দেয়া কানাডা সরকারের সহায়তার অনত্মত ১০ থেকে ১৫ শতাংশ অর্থ তার ‘সামাজিক ব্যবসাখাতে’ দিতে কানাডাকে প্রস্তাব দিয়েছেন। মন্ট্রিয়েলের ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির এক অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখার পর সংবাদ সম্মেলনে কানাডা সরকারের বৈদেশিক সহায়তা দেয়ার নীতিমালা পরিবর্তনের প্রস্তাব দেন তিনি। খবর নতুনদেশ ডটকম ড. ইউনূস বলেন, কানাডা যুগ যুগ ধরে বিশ্বের দরিদ্র ও উন্নয়নশীল দেশগুলোতে খাদ্য, নিরাপত্তা এবং আর্থিক সহায়তা অনুদান দিয়ে আসছে। বরাদ্দকৃত অর্থ ঠিক কি খাতে ব্যয় হচ্ছে তা না জেনে… বাকিটুকু পড়ুন »

অবিশ্রুত
সদস্য

ড. ইউনূস-এ বক্তব্য সম্পর্কে কয়েকজন অর্থনীতিবিদ-এর প্রতিক্রিয়া প্রকাশিত হয়েছে কালের কণ্ঠ-তে গত ১১ অক্টোবর : ড. ইউনূসের প্রস্তাবের সমালোচনা করেছেন অর্থনীতিবিদরা কানাডা সরকারকে দেওয়া ড. মুহাম্মদ ইউনূসের প্রস্তাবের তীব্র সমালোচনা করেছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদরা। তাঁরা বলেছেন, কোনো দেশের বৈদেশিক সাহায্য ব্যক্তির প্রকল্প খাতে নয়, রাষ্ট্রের প্রকল্প খাতে যাওয়া উচিত। এ ছাড়া ব্যক্তি প্রকল্পকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে রাষ্ট্রকে ছোট করা উচিত নয়। তাঁরা ড. ইউনূস কথিত সামাজিক ব্যবসাকে ‘ছদ্মবেশী বহুজাতিক পুঁজি’ বলেও উল্লেখ করেন। গতকাল রবিবার কালের কণ্ঠকে দেওয়া পৃথক প্রতিক্রিয়ায় তাঁরা এসব কথা বলেন। প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার মন্ট্রিয়লে এক সংবাদ সম্মেলনে ড. মুহাম্মদ ইউনূস কানাডা সরকারের বৈদেশিক সহায়তা দেওয়ার নীতিমালা… বাকিটুকু পড়ুন »

রায়হান রশিদ
সদস্য

১. Social Business বস্তুটি নিয়ে পশ্চিমেও ভীষণ মাতামাতি। বিষয়টি ঠিক বুঝতে পারি না। উইকিতে এ সংক্রান্ত একটি এন্ট্রি রয়েছে, সেখানে বলা হয়েছে: A social business is a non-loss, non-dividend company designed to address a social objective. The profits are used to expand the company’s reach and improve the product/service. This model has grown from the work of Muhammad Yunus and others. Social business is a cause-driven business. In a social business, the investors/owners can gradually recoup the money invested, but cannot take any dividend beyond that point. Purpose of the investment is purely to achieve one or more social objectives… বাকিটুকু পড়ুন »

ডাঃ আতিকুল হক
সদস্য
ডাঃ আতিকুল হক

এত বড় জ্ঞ্যানী গুনি মানুষের কাজের সমালোচনা করার মত ধৃষ্টতা আমার নাই। তবে সাধারন মানুষের দৃষ্টি দিয়ে এইটুকু বলতে পারি,কাজটা মনে হয় উনি ভাল করেন নাই।

নিরাভরণ
সদস্য
নিরাভরণ

কানাডার সরকারের কাছে প্রস্তাবের খবর আর এটা নিয়ে মাতামাতির বিষয়টা জানা গেল আপনার পোস্ট থেকে। সাধুবাদ সেই জন্য। তবে পোস্ট এবং আলোচনাইয় একটা বড় ধরনের অসংগতি রয়েছে, সবাই বলতে চাচ্ছেন সামাজিক ব্যবসা বোঝেননা আবার এই ধারনাটা “ভাল নয়” এরকম একটা কিছুও বলতে চাচ্ছেন। যেটা কেউ বুঝতেই পাড়ছেননা সেটার ব্যপারে জাজমেণ্টাল হচ্ছেন কি করে? দুঃখের ব্যপার হচ্ছে কোন কোন অর্থনীতিবিদও বলছেন তারা এটা বোঝেন না। আবার তারাও জাজমেন্টাল হচ্ছেন। বুঝতে পারলে তো সমালোচনা চলবে না — কাজেই নাবোঝার একটা ভান করা চাই। আমি বলছিনা আপনারা ভান করছেন কিন্তু অর্থনীতিবিদদের এটা না বোঝার কোন কারন নেই। কয়েকটা বিষয় এখানে উল্লেখ করতে চাই… বাকিটুকু পড়ুন »

রেজাউল করিম সুমন
সদস্য

মুহাম্মদ ইউনূস-এর Creating a World Without Poverty: Social Business and the Future of Capitalism (সহলেখক : Karl Weber, প্রকাশকাল: ২০০৭) বইটির রিভিউ — এখানে। বইটি ডাউনলোড করা যাবে এখান থেকে। উল্লিখিত রিভিউর উপসংহার : His treatise is a personal narrative rather than a structured introduction to the conceptualizing of social business and therefore does not ofer an in-depth discussion on what social business really is. The book is permeated by contradictory statements on concepts essential to the understanding of social business, leaving the careful reader wondering what Yunus truly believes. Furthermore, the argument for social business is saturated with politically… বাকিটুকু পড়ুন »

নিরাভরণ
সদস্য
নিরাভরণ

সোশাল বিজনেস ধারনার দ্বারা উদবুদ্ধ হয়ে এই কেলিফোর্নিয়া স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ে গঠিত হয়েছে ক্যালিফোর্নিয়া ইন্সটিটিউট অব সোশাল বিজনেস
উপরে এটার কথাই বলছিলাম। লিংকটা খুঁজে বের করে দিলাম হয়ত কারো আগ্রহ থাকতে পারে।

কামরুজ্জামান  জাহাঙ্গীর
সদস্য

সামাজিক ব্যবসার নামে তিনি, ড. ইউনূস, যে তার কর্পোরেট পুঁজির বিকাশ ঘটাবেন তা তো যাদের সাধারণ বিবেচনা আছে তারাও বুঝেন। অর্থনীতিবিদগণ যে সামাজিক ব্যবসা বিষয়টা বুঝেন না, তা বলতে তারা আসলে ভদ্রলোকিত্বের একটা আড়াল তৈরি করেছেন মাত্র। আনু মুহাম্মদ সেই আড়ালের কাছাকাছি থাকেননি, তিনি যথার্থই তাতে কর্পোরেট পুঁজির ছদ্মবেশের কথাই বলেছেন। আমার মনে হচ্ছে, তারা এই কথাটাই বুঝাতে চাইছেন, সামাজিক ব্যবসার নামে আপনি যে কি ধান্ধাটা করবেন তা কি আর আমরা বুঝি না মনে করেছেন। তিনি কানাডা সরকার কর্তৃক বাংলাদেশকে দেয় ঋণ থেকে ১০-১৫% ঋণ ফেরত-প্রদানের-গ্যারান্টিসহ দেয়ার প্রার্থনা করেছেন। ডঃ ইউনুসের মত বিশ্ব পরিচিত দারিদ্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত একজন নোবেল বিজয়ী… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

সামাজিক কার্যকলাপের পাশাপাশি আরেকটি শব্দ সব সময় শোনা যায় অসামাজিক কার্যকলাপ। এক্ষেত্রেও কি তাই হবে ইউনুস করেন সামাজিক ব্যবসা আর জগৎসুদ্ধ লোক করেন অসামাজিক ব্যবসা? social business-এর মাধ্যমে ইউনুস কী বোঝাতে চাইছেন, তার অভিপ্রায় সমাজতান্ত্রিক ব্যবসা বোঝানো নয় তো? আসলে ইউনুস কখনোই তত্ত্ব বোঝাতে ও প্রকাশ করতে পারেননি, তাই অনেক বছর তার নাম অর্থনীতি নিয়ে শোনা গেলেও তিনি তার প্রাণভোমরা ‘নোবেল’ শান্তিতে পেয়েছেন। আমরা জানি আরো হাজার হাজার বই লিখলেও তিনি কোনোদিন ‘শক্তি দই’ কেন social business এটা প্রকাশ করতে পারবেন না। কারণ সেই মুরোদ তার নেই তা এতদিনে পরিস্কার হয়ে গেছে। আসল ব্যাপার হল ‘ক্ষুদ্র ঋণ’ -এর মূল চাবি… বাকিটুকু পড়ুন »

ডঃ সামিম উল মওলা
অতিথি
ডঃ সামিম উল মওলা

আমি ৭-৮ মাস ডঃ ইউনুস সাহেবের গ্রামীণ স্বাস্থ্য প্রকল্পগুলোর অ্যাডভাইজার হিসেবে কাজ করেছি। ওখানে যোগদান করার কারণ একটিই ছিল যে গ্রামীণের ৮০ লক্ষ ঋণ গ্রহীতার এগজিস্টিং চ্যানেলে আমি বড় ব্যানারে সহজেই স্বাস্থ্য সেবায় অবদান রাখতে পারবো, নতুন সেট আপ করতে সময় লেগে যায়! পরবর্তীকালে আমি পদত্যাগ করেছি এবং নিতান্ত বাধ্য হয়েই তারা গত ২২শে জুলাই আমাকে রিলিজ করেছে! অ্যাডভাইজার হিসেবে কাছাকাছি থেকে আমি তাঁর কার্যকলাপ দেখেছি। তাতে আমার যা ধারণা হয়েছে তা হল — ১। উনি অতিমাত্রার স্বৈরাচারী স্বভাবের মানুষ। ২। সামাজিক ব্যাবসার নামে উনি বিভিন্ন বহুজাতিক কর্পোরেট সংস্থাকে বাংলাদেশ সহ এই অঞ্চলে বাজার গড়তে যে কোনো কারণে উঠে পড়ে… বাকিটুকু পড়ুন »

কামরুজ্জামান  জাহাঙ্গীর
সদস্য

মহান এই সুদখোরের স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের ব্যাপারে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু জানতে আগ্রহী আমি।

মোহাম্মদ মুনিম
সদস্য

ডঃ ইউনুস এবং তাঁর গ্রামীণ ব্যাঙ্ক সম্পর্কে অল্প স্বল্প যা জানি সেটা হচ্ছে তিনি conventional banking এ যাদের credit worthy ধরা হয় না, মানে যারা দরিদ্র এবং অতি দরিদ্র, তাঁদের ব্যাঙ্কিং প্রক্রিয়ার আওতায় আনতে পেরেছেন। দরিদ্র মানুষেরা credit worthy না হবার প্রধান কারণ তাদের টাকা ধার দিলে সেটা ফেরত না পাবার আশঙ্কা আছে। আরেকটা কারণ হচ্ছে একজন দরিদ্র মানুষ কয়েকশ বা কয়েক হাজার টাকার বেশি লোন নিবেন না। স্বল্পসংখ্যক ঋণগ্রাহককে কয়েক লাখ বা কোটি টাকা করে দিয়ে ব্যাঙ্কিং করা যায়। কিন্তু কয়েক লাখ ঋণগ্রাহককে এক বা দু হাজার টাকা করে দিয়ে সেটা আদায় করতে যে বিপুল জনবল এবং শ্রমের প্রয়োজন,… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

ক্ষুদ্রঋণের গ্রহীতারা প্রায় সবাই দরিদ্র+মহিলা+গ্রামে বাস করে। দরিদ্র+মহিলাদের জন্য গ্রামে ক্ষুদ্র পুঁজি বিনিয়োগের কি কি সুযোগ আছে? তাদের উতপাদিত পণ্যের বাজার আছে কি? তারা কি অন্য কোন সরকারী/বেসরকারী সোর্স থেকে সহায়তা পাচ্ছে? ক্ষুদ্রঋণের ফলাফল নির্ধারনে এই বিষয়গুলো বিবেচনায় রাখা জরুরী। – তারা মূলত যেসব খাতে বিনিয়োগ করতে পারে, তা হল- শাকসব্জি চাষ, গরু-চাগল-হাস-মুরগী পালন, ধান থেকে চাল, গম থেকে আটা, বা সড়িষা থেকে তেল (এই জাতীয় আরো কিছু), ইত্যাদি। আমার এলাকায় আমি এগুলোই দেখেছি। কিন্তু ক্ষুদ্রঋণ নিয়ে আবাদী-চাষাকে কৃষিকাজে বিনিয়োগ করতে দেখিনি কখনো। পাঠককেও চেষ্টা করতে বলি আর কোন কোন খাত তাদের বিনিয়োগ দেখেছেন তা স্মরণ করতে। এখন ভেবে দেখুন… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

সাধারণ ব্যবসায় কার কার স্বার্থ থাকে? — ১. বিনিয়োগকারী ২. কর্মচারী ৩. ভোক্তা ৪. যাবতীয় রাজস্ব প্রতিষ্ঠান বা আরো বড় অর্থে সরকার। তাহলে সামজিক ব্যবসায় কার কার স্বার্থ থাকবে?– অবশ্যই ওই চারটি স্বার্থের বাইরে সামাজিক সমস্যাগুলোর একটা স্বার্থ থাকবে। খুব সহজে আমি এটাই বুঝতে চেষ্টা করছি। আমাদের এখন জানতে হবে আমাদের সামনে কী কী সামাজিক ব্যবসা এর মধ্যে শুরু হয়েছে ও হবে। গ্রামীণ ড্যানোনের শক্তি দই উৎপাদন সামাজিক ব্যবসার একটি বড় উদাহরণ বলে অভিমত দেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস। তিনি তাঁর প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ ব্যাংকের সঙ্গে বিশ্বের নামকরা প্রতিষ্ঠানের যৌথভাবে সামাজিক ব্যবসার উদ্যোগ শুরু করার কথা জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশে প্রয়োজনের তুলনায়… বাকিটুকু পড়ুন »

trackback

[…] মুক্তাঙ্গন, ১৪/১০/১০ গ্রামীন ক্ষুদ্রঋণ সম্পর্কে […]

মাসুদ করিম
সদস্য

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের হাতে আসা নথিপত্রে দেখা গেছে, দারিদ্র্য দূর করার জন্য ভর্তুকি হিসেবে গ্রামীণ ব্যাংককে ১৯৯৬ সালে বিপুল পরিমাণ অর্থ দেয় ইউরোপের কয়েকটি দেশ। নরওয়ে, সুইডেন, নেদারল্যান্ডস ও জার্মানির দেওয়া অর্থ থেকে ১০ কোটি ডলারেরও বেশি গ্রামীণ ব্যাংক থেকে গ্রামীণ কল্যাণ নামে নিজের অন্য এক প্রতিষ্ঠানে সরিয়ে নেন ইউনূস।

লাভহীন গল্পের লাভের খাল কীকরে কাটতে হবে তাই কি শেখাচ্ছেন সামাজিক ব্যবসার প্রবক্তা?

বিস্তারিত পড়ুন এখানে

রেজাউল করিম সুমন
সদস্য

নরওয়ের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত বহুল আলোচিত তথ্যচিত্রটি অনলাইনে দেখার সুযোগ আছে এখানে

ড. ইউনূসের বক্তব্য তুলে ধরে এক দিন পরে প্রতিবেদন ছেপেছে দ্য ডেইলি স্টার

অবিশ্রুত
সদস্য

প্রামাণ্যচিত্রের নির্মাতা টম হাইনেমান ইতিমধ্যে বাংলাদেশের একটি অনলাইন নিউজ সার্ভিসে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তবে যে-ভাবেই বিষয়টি উঠে আসুক না কেন, অর্থমন্ত্রী দেখা যাচ্ছে বিষয়টিকে ঠিক অনিয়ম হিসেবে দেখতে চাইছেন না। সমঝোতা হয়ে থাকলে কোনও অসুবিধা নেই- বিষয়টিকে এভাবেই দেখছেন তিনি। অদ্ভূত একটি দেশে বসবাস আমাদের- এ দেশে কর সঠিকভাবে সঠিক সময়ে প্রদান করে মাঝারি আয়ের মানুষ ও প্রতিষ্ঠানগুলি। কিন্তু বড় বড় প্রতিষ্ঠান ও মানুষগুলি কর দেয়া দূরে থাক, মন্ত্রী-মিনিস্টার ধরে কর মওকুফ করে নেন,আইনের ফাঁক দিয়ে ঢুকে পড়েন যাতে কর না দিতে হয় (যেমন গ্রামীণ কল্যাণে অর্থ স্থানান্তর করা হয়েছে শুধুমাত্র কর না দেয়ার উদ্দেশ্যে, তারপর আবার সেই টাকা গ্রামীণ ব্যাংককে… বাকিটুকু পড়ুন »

নীড় সন্ধানী
সদস্য

কোথাও ড.ইউনুসের ব্যক্তিগত সম্পদ, ব্যাংক হিসাব ও করদায় সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যাবে কি?

যার মাথায় এত আইডিয়া, যার প্রতিষ্ঠিত ব্যাংক দিয়ে প্রতি বছর হাজার হাজার কোটি টাকা আসা যাওয়া করে, ব্যাংক প্রতিষ্ঠার ৩০ বছর পরও তার ব্যাংক ব্যালেন্সে খরা যাচ্ছে এটা বিশ্বাসযোগ্য হয় না।

আমাদের দেশেও একজন টম হেইম্যান কিংবা জুলিয়ান এসেঞ্জের দরকার ছিল।

মাসুদ করিম
সদস্য

গতকাল রবিবার রাজধানীর মিরপুরে গ্রামীণ ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসব কথা বলেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী এই অর্থনীতিবিদ। গ্রামীণ ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক নূরজাহান বেগম ও মহাব্যবস্থাপক এম শাহজাহানসহ প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এই লিখিত বক্তব্যের পূর্ণ বিবরণী কারো কোথাও চোখে পড়েছে? আমি কালের কণ্ঠে দুঃখ পেয়েছি লড়াই করতে চাই না : ড. ইউনূস পড়লাম এরপর আরো কয়েকটি পত্রিকায় লিখিত বক্তব্যটি পাওয়া যায় কিনা খুঁজলাম। পেলাম না, সব পত্রিকাতেই উদ্ধৃতি দিয়ে ইউনূসের বক্তব্য জানানো হয়েছে। কিন্তু সংবাদ সম্মেলনে পঠিত পূর্ণাঙ্গ লিখিত বক্তব্যটি পড়বার প্রয়োজন ছিল। এই লিখিত বক্তব্যের হদিস কারো জানা থাকলে এখানে… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে ইউনূসকে অপসারণ করা হয়েছে। নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছে। তবে এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তিনি হাইকোর্টে যাবেন। বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক চিঠিতে ইউনূসের অপসারনের কথা জানানো হয়। এতে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর নজরুল হুদা । চিঠিতে ড. ইউনূসকে অপসারণ করার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, ১৯৮২ সালের গ্রামীণব্যাংক অধ্যাদেশ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের কোম্পানি আইন অনুযায়ী ৬০ বছর পার হওয়ার পর ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে কেউ থাকতে পারেন না। থাকলেও তাকে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে। কিন্তু ড. ইউনূস তার বয়স ৬০ বছর পার… বাকিটুকু পড়ুন »

মাকসুদুল আলম
অতিথি
মাকসুদুল আলম

ডক্টর ইউনুস এর বর্তমান বয়স ৭০ বছর.বাংলাদেশ বাংক ও গ্রামীন বাংক এর আইন অনুযায়ই যদি ৬০ বছর বয়সে উনার অবসরে যাওয়ার কথা থাকে তাহলে ইতিমধে তিনি ১০ বছর পার করে এসেছেন .আমার প্রশ্ন হলো এই দশ বছর এই দুইটি আইন কি তাহলে হায়বার্নাসনে ছিলো?

মোহাম্মদ মুনিম
সদস্য

প্রথম আলোতে দেখলাম মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডঃ ইউনুসের অপসারণে ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছেন। বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতেরা সাধারণত মধ্যমমানের কূটনীতিবিদ হন, তবে অন্য দেশের ব্যাঙ্কের এমডি থাকা না থাকা নিয়ে একজন রাষ্ট্রদূতের নাক গলানো যে শোভন নয়, এটা নিশ্চয় তাঁরা জানেন। দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের এসে তাঁরা ব্রিটিশ আমলের গভর্নরদের মত আচরণে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন।

মাসুদ করিম
সদস্য

ক্ষুদ্রঋণের আলোচনা শুধু গ্রামীণ ব্যাংকের মধ্যে আবদ্ধ না রেখে আমাদের এই সরকারী প্রতিষ্ঠানটির দিকে মনে হয় নজর দেয়া উচিত, পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন বা সংক্ষেপে পিকেএসএফ — নীরবে নিভৃতে এই প্রতিষ্ঠান ২০ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে এবং বাংলাদেশের ক্ষুদ্রঋণের একটা বড় অংশের নিয়ন্ত্রণ এখন এই প্রতিষ্ঠানের হাতে, আজই প্রথম আমি এই প্রতিষ্ঠানটি সম্বন্ধে জেনেছি। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট : http://www.pksf-bd.org

মাসুদ করিম
সদস্য

অনুরাগ বেহার মনে করেন সামাজিক ব্যবসার মন নিয়ে লিখতে হলে উপন্যাসই লিখতে হয়, কিন্তু তিনি লিখছেন কলাম এবং সেই কলামে কিছু হলেও বলতে পেরেছেন তিনি এই মনের কথা। বিশেষত সামাজিক ব্যবসার পণ্যের মূল্যনির্ধারণ কিকরে হবে? When deciding pricing, should they price such that they just cover their costs and investment needs, or should they price to the maximum that the market can bear? Should they share their intellectual property freely or should they “price” it? Should they raise private capital or depend on public funding? I have seen them struggle with what takes priority—profit or purpose. The founder(s) sometimes maintain… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

বয়স হলে কি মানুষের ফিকশনের প্রতি আকর্ষণ বাড়ে? ইউনূস কেমন ফিকশনের দিকে ঝুঁকেছেন, তরুণ তরুণীদের সামাজিক ফিকশন লিখতে বলেছেন ইউনূস। সামাজিক ফিকশন, ওফ, কালে কালে আরো কত যে দেখব!

trackback

[…] […]

Donna Tammy
অতিথি
Donna Tammy

প্রিয় তুমি আপনি ব্যবসা ঋণ, ব্যক্তিগত ঋণ, হোম ঋণ, গাড়ি খুঁজছেন ঋণ, ছাত্র ঋণ, ঋণ একীকরণ ঋণ, অসুরক্ষিত ঋণ, ব্যবসা ক্যাপিটাল, ইত্যাদি … বা আপনি একটি ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে একটি ঋণ অস্বীকার করা হয় অন্তত এক কারণে, আপনি সঠিক অবস্থানে আছেন আপনার ক্রেডিট সমাধান পরিশোধ করুন! আমি একটি ব্যক্তিগত ঋণদাতা। আমি কোম্পানি এবং ব্যক্তিদের টাকা ধার। কম সুদের হার এবং সাশ্রয়ী মূল্যের দাম 2% হার আগ্রহী? ক্রেডিট অপারেশন ট্র্যাক এবং আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন 48 ঘন্টা মধ্যে স্থানান্তর আবেদন বিবরণী: নাম: জন্মদিন: লিঙ্গ: বৈবাহিক অবস্থা: ঠিকানা: শহর: রাজ্য / প্রদেশ: পোস্ট অফিসের নাম্বার: দেশ: ফোন: ই-মেইল: ঋণের উদ্দেশ্য:… বাকিটুকু পড়ুন »

  • Sign up
Password Strength Very Weak
Lost your password? Please enter your username or email address. You will receive a link to create a new password via email.
We do not share your personal details with anyone.