‘ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন’

'ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন' মনোরঞ্জন ব্যাপারীর প্রবন্ধ-সংকলন বা গবেষণা-অভিসন্দর্ভ নয়, আত্মজৈবনিক উপন্যাসের প্রথম খণ্ড — এবং সেইসঙ্গে সম্ভবত কোনো বাঙালি দলিত লেখকেরও প্রথম আত্মজৈবনিক উপন্যাস। [...]

মনোরঞ্জন ব্যাপারী

ছবির এই মানুষটি — মনোরঞ্জন ব্যাপারী — নিজের জন্মতারিখ জানেন না। তাঁর গর্ভধারিণীও ছেলের জন্মের দিনটির কথা ঠিকঠাক বলতে পারেননি। আনুমানিক ১৯৫০ সালের দিকে তাঁর জন্ম — বরিশালে। দেশভাগের ধাক্কায় তাঁদের ছিন্নমূল পরিবার যখন পশ্চিমবঙ্গে পাড়ি জমায় সে-সময়ে মনোরঞ্জনের বয়স তিন বছর। বারে বারে ঠাঁইনাড়া হতে হয়েছে — উদ্বাস্তু শিবিরের মানবেতর পরিবেশে তিনি বড়ো হয়েছেন আরো অসংখ্য দেশহারা মানুষজনের সঙ্গে, ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাঁর পরিবারকে যেতে হয়েছে দণ্ডকারণ্যে। অল্পবয়স থেকেই মনোরঞ্জনকে জড়িয়ে পড়তে হয়েছে কঠিন জীবনসংগ্রামে। আর বর্ণমালায় তাঁর হাতেখড়ি হয়েছে শৈশবে নয়, চব্বিশ বছর বয়সে — কয়েদখানায়! এমন একজন মানুষের লেখা ‘ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন’ (২০১২) বইটি এখনো পড়ার সুযোগ পাইনি। কিছুদিন আগে কলকাতা থেকে এ বইয়ের একটা কপি নিয়ে এসেছেন একজন; আর সেটা পড়ার জন্য পড়ে গেছে লম্বা লাইন। এক সন্ধ্যায় বইটা হাতে নিয়ে উলটেপালটে দেখার সুযোগ হয়েছিল।

‘ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন’ (প্রথম খণ্ড)

‘ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন’ প্রবন্ধ-সংকলন বা গবেষণা-অভিসন্দর্ভ নয়, মনোরঞ্জন ব্যাপারীর আত্মজৈবনিক উপন্যাসের প্রথম খণ্ড — এবং সম্ভবত কোনো বাঙালি দলিত লেখকেরও প্রথম আত্মজৈবনিক উপন্যাস।

কিন্তু মরাঠী, কন্নড় ও গুজরাতির মতো বাংলা ভাষায়ও কি দলিত সাহিত্যের একটি ধারা আছে, যা এখনো সবার গোচরে আসেনি? দেবেশ রায় সম্পাদিত ও সংকলিত ‘দলিত’ (প্রথম প্রকাশ ১৯৯৭, দ্বিতীয় মুদ্রণ ২০০৪) নামের সংকলনটিতে কিন্তু তার আভাস মাত্রও ছিল না। এখন থেকে বছর পাঁচেক আগে, ২০০৭ সালে, মনোরঞ্জন ব্যাপারীরই একটি প্রবন্ধ এদিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে সর্বভারতীয় পাঠক-সমালোচকদের। ভারতের ‘ইকোনমিক অ্যান্ড পলিটিকাল উইকলি’-র একটি সংখ্যায় (বর্ষ ৪২ সংখ্যা ৪১, ১৩ অক্টোবর ২০০৭) তাঁর হইচই-ফেলে-দেয়া প্রবন্ধ ‘Is there Dalit Writing in Bangla?’ প্রকাশিত হয়েছিল মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের অনুবাদে।

বাংলাদেশে তাঁকে নিয়ে এখনো আলোচনার সূত্রপাত না হলেও মনোরঞ্জন ব্যাপারী ইতিমধ্যেই তাঁর লেখনীর জোরে অনুসন্ধিৎসু পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পেরেছেন। তাঁর উপন্যাসের সংখ্যা ৯, গল্প শতাধিক।

রেজাউল করিম সুমন

একজন সামান্য পাঠক।

46
আলোচনা শুরু করুন কিংবা চলমান আলোচনায় অংশ নিন ~

মন্তব্য করতে হলে মুক্তাঙ্গনে লগ্-ইন করুন
avatar
  সাবস্ক্রাইব করুন  
সাম্প্রতিকতম সবচেয়ে পুরোনো সর্বাধিক ভোটপ্রাপ্ত
অবগত করুন
সুমিমা ইয়াসমিন
সদস্য

মনোরঞ্জন ব্যাপারীর লেখা কোনো বই পড়া হয়নি। পড়তে হবে। ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন কয় খণ্ডে প্রকাশিত?

আহমেদ মুনির
সদস্য

ধন্যবাদ সুমন। সাক্ষাতকার পড়লাম। খুব ভালো লাগল। বইটাও কিনলাম। পড়বো।

সবুজ পাহাড়ের রাজা
সদস্য

পড়ার ইচ্ছা জাগল। ২৪ বছর বয়সে লিখতে শিখেছেন শুনে উনার বই পড়ার আগ্রহ আরো বেড়ে গেল। দু’একদিনের মাঝে বাতিঘরে যেয়ে বইটি কিনব।

ধন্যবাদ সুমন ভাই।

মাসুদ করিম
সদস্য

32435859

যে আমি কখনো স্কুলের চৌকাঠ ডিঙ্গোইনি, আকাট মূর্খ, সেই আমাকে যাদবপুর, দিল্লি, শিলচর আর হায়াদ্রাবাদ — চার বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগের চার অধ্যাপকদের নিয়ে গড়া এক কমিটিতে সমমর্যাদায় স্থান দেওয়া হল। আমার উপর দায়িত্ব রইল বাংলা দলিত সাহিত্য সংকলনটির…একজন তুচ্ছ নগণ্য মানুষ। সে কি কোনোদিন ভাবতে পেরেছিল তার জীবদ্দশায় কোনোদিন এত বড় প্রাপ্তি ঘটবে?

বিস্তারিত পড়ুন : কলমে জীবনের জলছবি এঁকে বিশ্বমঞ্চে মনোরঞ্জন

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশের অগণিত মানুষ/আমার পাঠক, সবাইকে আমার শুভেচ্ছা- ভালবাসা প্রনাম। আমার জানা ছিলনা আপনারা আমাকে এত ভালবাসেন।আমার ল্যাপটপও ছিলনা । এক বনধু দিন কয়েক আগে কিনে দিয়েছে।তাই আপনাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি।জানিনা হবে কি না।যদি হয়, আপনারা চাইলে আমাকে এই নাম্বারে ফোনও করতে পারেন-৯১ ৯২৩১ ৫০৩৮৭৩/৯১ ৯৮৩১ ৯৩৯৩৩৯ ।
পরিশেষে রেজাউল করিম ভাইকে জানাই অসীম কৃতজ্ঞতা ।আমার জন্য আপনি যা করেছেন তার তুলনা নেই।

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

যে ভাবে এই ওয়েবসাইট-এ হঠাৎ এসে গেছি জানিনা পরে আবার আসতে পারব কীনা।তাই আরো কিছু সময় থাকব- যদি আপনাদের কারও কোন মন্তব্য আসে ।

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

আমার এই পর্যন্ত সর্ব মোট ১০ খানা বই বের হয়েছে । ১,বৃত্তের শেষ পর্ব । ২,জিজীবিষার গল্প। ৩,গল্প সমগ্র ।৪, চণ্ডাল জীবন । ৫,অন্য ভুবন। ৬,বাতাসে বারুদের গন্ধ । ৭,অমানুষিক । ৮,মতুয়া এক মুক্তি সেনা । ৯, ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন [প্রথম খণ্ড] । ১০, ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন[দ্বিতীয় খণ্ড] । গোটা চারেক উপন্যাস পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে যা এখনও বই আকারে আসেনি ।আগামী বই মেলায় আসবে দুটো উপন্যাস- ছেড়া ছেড়া গদ্য ও শঙ্কর গুহ নিয়োগীর জীবন ভিত্তিক উপন্যাস- মরণ সাগরের পাড়ে তোমরা অমর , আসবে দুটো গল্প সংকলন আর ‘অন্যের চোখে মনোরঞ্জন ব্যাপারী- জীবন ও সাহিত্য ।

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

আমার পক্ষে যোগাযোগ করা কঠিন । তবে আপনার চাইলে তা অনায়াসে পারেন।
আমি একজন প্রকাশক চাইছি- বাংলা দেশে । যিনি আমার ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবনের দুই খণ্ড ও অন্যান্য লেখাগুলো ছাপাবেন । কোন শর্ত চাপাবো না । আছেন কেউ ? আমার ঠিকানা-মনোরঞ্জন ব্যাপারী ,গ্রাম-৪ নাম্বার খুদিরাবাদ, পোষ্ট- ঢালুয়া, থানা- সোনারপুর, কলকাতা-৭০০১৫২, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত । আমি সেই লেখক যার কথা এই ব্লগে আছে । যা নেই তা হল- আমি পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি পুরস্কার পেয়েছি। পেয়েছি ২৪ ঘণ্টা অনন্য সম্মান। আছেন কেউ আমার বই ছাপাবার মত??????????

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

এ সব তো ২০১২ সাল অর্থাৎ তিন বছর আগেকার মন্তব্য। তারপর আর কিছু নেই। কেন নেই ? আমি যে আপনাদের মতামত জানতে চাই ।

্মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

রেজাউল করিম সুমন দাদা , আপনিও আমার ব্যাপারে নীরব !কেন দাদা ?

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

রেজাউল করিম সুমন দাদা, আমি জানতাম না যে আপনি আমাকে বাংলাদেশের পাঠকদের কাছে তুলে ধরার জন্য নিজে থেকে এতখানি সচেষ্ট হয়েছেন । কি বলে যে আমি আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করব বুঝে উঠতে পারছি না । তিন বছর কেটে গেছে,২০১২ থেকে ২০১৫- অনেকটা সময় । বুঝতে অসুবিধা হচ্ছেনা বাংলাদেশে আমার একদল পাঠক তৈরি হবার পিছনে আপনার অবদান অসামান্য, যাদের অনেকের ফোন পাই । কেউ কেউ ভারতে এলে আমার সঙ্গে দেখাও করে যান । এই তো অল্প কিছু দিন আগে শ্রদ্ধেয় লেখক হরি শঙ্কর জলদাস এসেছিলেন । শুনেছি ফিরে গিয়ে ওখানকার পত্রিকায় আমার বিষয়ে লিখেছেন। যাই হোক দাদা- একবার যোগাযোগ যখন… বাকিটুকু পড়ুন »

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

রেজাউল করিম সুমন দাদা , আমার ‘অন্যের চোখে মনোরঞ্জন বাপারী- জীবন ও সাহিত্য’ বই খানার প্রকাশক চেতনা লহর। আমার অন্য বই বাংলা দেশে প্রকাশনার ব্যাপারে আপনি যে উদ্যোগ নিয়েছেন তার জন্য ধন্যবাদ। আমার এই ইমেলে একবার চেস্টা করে দেখুন যদি কথা পৌঁছানো যায় ।manoranjanbapari@gmail,com ।। আর কি, আপনাকে আর একবার ধন্যবাদ আপনার মাধ্যমে নিসার হোসেন সাহেবকে জানাই অসীম কৃতজ্ঞতা।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

আমি গত ১৬ই ডিসেম্ব্র-২০১৬ এক সেমিনারে যোগ দিতে দিল্লিতে গিয়ে ছিলাম। আমাকে দেশের প্রতি প্রান্তে অনবরত যে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় এবারও তা হতে হয়েছে । সেই প্রশ্নটা এই- আপনি কেন লেখেন ? আর আমি সববার যে জবাব দিই এবারও তাই দিয়েছি । আমার জবাব ছিল- আমার খুব খুন করতে ইচ্ছা করে । – পারিনাতো, তাই লিখি। যদি খুন করতে পারতাম আর লিখতাম না । সত্যিই তাই, সত্যিই আমার খুন করতে খুব ইচ্ছা করে ।এক অসহায় গরিব মা তার শিশু কন্যাটিকে একলা ঘরে রেখে কোথাও গেছে দু মুঠো অন্নের সন্ধানে। ভাঙ্গা ঘরের দরজা ঠেলে সেই ঘরে ঢূকে পড়ল এক ধর্ষক।… বাকিটুকু পড়ুন »

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

চেতনা লহরের বইটা কলকাতা বই মেলায় বের হবে । তখন ঠিকানা দিয়ে দেব । দেখুন ওই নবীন প্রকাশক কি বলে । ধন্যবাদ ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশের বন্ধুরা আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিন্দন। ভাল আছেন তো আপনারা ? আর আমার বিষয়ে আপনাদের কোন মন্তব্য দেখছিনাতো ! ভুলে গেলেন নাকি আমাকে ? এটা তো একদম ভাল কথা নয় । আমাকে আপনারা ভুলতে চাইলেও আমি ভুলতে দেব কেন ? আগামী ১৩ই জানুয়ারি ১৬ বাংলা আকাদেমিতে আমার গল্প পাঠ । আসবেন নাকি ?

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

খুব ইচ্ছা করে একবার বাংলাদেশে যাই। আমার জন্মভূমি বরিশাল জেলার তুড়ুক খালি গ্রামের সেই মাটিতে গিয়ে একবার দাড়াই। বুকভরে একবার নিঃশ্বাসে টেনেনি সেই মাটি জল ফসলের ঘ্রান। মনটা বড় কাদে দেশের মাটি মানুষের জন্য। যে দেশ থেকে সেই বাষট্টি বছর আগে বাধ্য হয়ে চলে আসতে হয়ে ছিল । কাদের ষড়যন্ত্রে যেন দেশ ভিখারিতে পরিণত হয়ে গিয়েছিলাম অবোধ বাল্যবেলায়। আমাদের মত জার্মানিকেও সাম্রাজ্যবাদীরা দু টুকরো করে দিয়ে ছিল । শুভ বুদ্ধির উদ্য় হতেই মানুষ বাধার দেওয়াল গুড়িয়ে দিয়ে আবার এক হয়ে গেছে । এমনটা আমরা কি পারিনা ?

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশের আমার পাঠক বন্ধু সবাইকে জানাচ্ছি আমার আত্ম জীবনী ইতিবৃত্তে চন্ডাল জীবন- এর দ্বিতীয় খণ্ড দুদিন আগে ১০টা কপি বাতিঘর বুক সেন্টারে নিয়ে গেছে। অন্য যদি কারও বই দরকার হয় আমাকে ফোন করুন- ৯২৩১৫০৩৮৭৩ এই নাম্বারে। তখন কি ভাবে বই পাঠান যাবে চেষ্টা করব। ধন্যবাদ ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলাদেশের আমার পাঠক বন্ধুদের জানাচ্ছি আমার বই ” ইতিবৃত্তে চন্ডাল জীবন” এখন দুটো খণ্ডই চট্টগ্রামের বাতিঘর বই বিপণিতে পাওয়া যাচ্ছে । মাঝে যে খানিকটা সাপ্লাই সমস্যা হয়ে ছিল – এখন আর তা নেই । এখন থেকে নিয়মিত ওখানে আমার সব বই পাওয়া যাবে । চাইলে আপনারা আমাকে ফোন করুন – ৯২৩১৫০৩৮৭৩/ ৯৮৩১৯৩৯৩৩৯ এই নাম্বারে ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

সেই ১৯৮১ সাল থেকে লিখছি । দেশ বিদেশের বহু মানুষ আমাকে নিয়ে বহুত কিছু লিখেছেন। সেই সব লেখাকে একত্র করে প্রকাশিত হতে চলেছে-”নানা চোখে মনোরঞ্জন ব্যাপারী”। যদি কোন বড় রকম বিপর্য্যয় না ঘটে আজ থেকেই পাঠকদের হাতে তুলে দিতে পারব । আপনার চাই?

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশের আমার পাঠক শুভানুধ্যায়ী বন্ধুদের জানাচ্ছি , আমার বই পত্র নিয়মিত চট্টগ্রামের বই বিপনি ”বাতিঘরে” যাচ্ছে। এই তো দিন তিনেক আগে একটা লট গেল । সেই সাথে গেছে চেতনা লহর পত্রিকাও । যে পত্রিকায় আমি বাংলাদেশের প্রখ্যাত লেখক হরি শঙ্কর জলদাস্ কে নিয়ে লিখেছি । আপনাদের যার যা বই দরকার বইঘরে খোজ করলে পেয়ে যাবেন । সবাই ভাল থাকুন।ধন্যবাদ ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

গতকাল আমার বাসায় এসে ছিলেন বাংলা দেশের লেখিকা রোমেনা আফরোজ । আমার জীবনে সে এক স্মরণীয় মুহুর্ত । আমার একটা বই যে এক জন মানুষকে এত খানি নাড়া দিতে পাড়ে ভেবে অবাক হচ্ছি । উনি আমার বাসায় ছিলেন মিনিট পনের। মনেই হয়নি যে এই আমাদের প্রথম দেখা । মনে হল যেন বহু কালের পরিচিত । মানুষটি শুধু দেখতেই সুন্দর নন মনটাও সুন্দর । আমাদের এই সাক্ষাৎকার আমার মনের মণি কোঠায় চির ভাস্কর হয়ে থাকবে বহু বহু বছর । তারপর কোন এক দিন – যদি ইতিবৃত্তে চন্ডাল জীবনের তৃতীয় খন্ড লিখতে পারি- লিখব অনাগত মানুষদের জন্য এই মানুষটির কথা । ওই… বাকিটুকু পড়ুন »

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

চট্টগ্রামের বই বিপনি ” বাতি ঘর”কেও আমার অনেক অনেক শুভেচ্ছা অভিনন্দন ভালবাসা জানাই ।ওনাদের জন্যই আজ বাংলা দেশে আমার একটা পাঠক গোষ্ঠী তৈরি হতে পেরেছে । আবার জানাই আপনাদের আমাব শ্রদ্ধা ভালবাসা । ধন্যবাদ ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশ থেকে আমার সাথে দেখা করতে লেখক হরি শঙ্কর জলদাস এসেছেন, এসেছেন অধ্যাপক নিসার হোসেন, এসেছেন লেখিকা রোমেনা আফরোজ । এইসব মানুষের সাথে আমার পরিচিতির মাধ্যম রেজাউল করিম সুমন । সবাই তো এলেন , আপনি কবে ভারতে আসবেন দাদা ????????????????

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলা দেশের আমার পাঠক বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই ? আপনারা আর আমার কোন খোজ খবর নিচ্ছেন না , ভুলে গেলেন নাকি? আপনারা কি খবর পেয়েছেন আমার আর একটা বই বের হয়েছে? এটা শহীদ শঙ্কর গুহ নিয়োগীর জীবন ভিত্তিক একটা উপন্যাস – নাম মরন সাগরের পাড়ে তোমরা অমর । এই বই চাইলে অর্ডার দিন চট্টগ্রামের বই বিপনি- বাতিঘরে । পেয়ে যাবেন । ধন্যবাদ

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

কেমন আছেন আমার বাংলা দেশের বন্ধুরা ?

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বন্ধুরা আমার শহিদ শঙ্কর গুহ নিয়োগীর জীবন ভিত্তিক উপন্যাস-” মরণ সাগরের পাড়ে তোমরা অমর” বই খানা এখন কলেজ স্ট্রিটের আদি দে বুক স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে ।দাম ৩৫০ টাকা মাত্র ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বাংলাদেশে আমার বই প্রকাশ করতে চান এমন কোন প্রকাশক কি আছেন? থাকলে যোগাযোগ করুন – ৯২৩১ ৫০৩৮৭৩ এই নাম্বারে ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

বহুদিন পরে আবার এই ব্লগে লিখতে এলাম । কেমন আছেন বন্ধুরা ? সবাই ভালো তো ? আপনাদের যে বিশেষ খবরটা দেবার জন্য এই লেখা- সেটা হল আগামী ২০১৭ কলকাতা বই মেলায় ”দে পাবলিশার্স ” থেকে প্রকাশিত হতে চলেছে আমার ” ইতিবৃত্তে চণ্ডাল জীবন” বই খানির অখন্ড সংস্করন । যাদের দরকার চট্টগ্রামের বাতিঘর বই বিপনি থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন । ধন্যবাদ ।

মনোরঞ্জন ব্যাপারী
অতিথি

আমার প্রিয় পাঠক বন্ধুরা , অন্য কার কী রকম সম্পর্ক তা আমার জানার কথা নয় , তবে আমার পাঠকদের সাথে আমার রয়েছে একটা গভীর নিবিড় আত্মীক সম্পর্ক । নিয়মিত আপনারা আমার খোঁজ খবর নিতে ফোন করেন , ফেসবুকে লেখেন- আমার শারীরিক অবনতি ঘটলে আপনারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন -যা দেখে আমি বুঝতে পারি আপনারা আমাকে কত ভালোবাসেন । যখন হতাশার নিরাশার ঘনঘোর আঁধারে ডুবে যাই , যখন ক্লান্তিতে দেহ নুয়ে আসে – আর লিখতে পারিনা , আপনাদের ওই ভালবাসার স্পর্শে উজ্জিবিত হয়ে উঠি । সব হতাশা ক্লান্তি ঝেড়ে ফেলে কাগজ কলম নিয়ে বসি । আপনারাই আমার সব শক্তির উৎস । আমি… বাকিটুকু পড়ুন »

মাসুদ করিম
সদস্য

  • Sign up
Password Strength Very Weak
Lost your password? Please enter your username or email address. You will receive a link to create a new password via email.
We do not share your personal details with anyone.